মানিকগঞ্জে হোমিওপ্যাথিক বিদায়ী শিক্ষার্থীরা  সম্মাননা পদক প্রদান

মানিকগঞ্জে হোমিওপ্যাথিক বিদায়ী শিক্ষার্থীরা  সম্মাননা পদক প্রদান
ছবিঃ সংগৃহীত

মো. নজরুল ইসলাম।। মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি।।'আমার এ জীবন বৃথা নয়' সদৃশ্য বিধানই আরোগ্যের মূলমন্ত্র"মাহাত্ম্য ডাঃ হ্যানিম্যান এর অমর বাণীকে ধারণ করেই আজ মানিকগঞ্জ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে মিলনায়তনে সকাল ১০.ঘটিকা থেকে দুপুর ২.০০ ঘটিকা পর্যন্ত ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশন মানিকগঞ্জ এর আয়োজনে ডিএইচএমএস ৪র্থ বর্ষের বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সম্মাননা পদক প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। 

উক্ত অনুষ্ঠানে মানিকগঞ্জ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এর অধ্যক্ষ ডাঃ মো. আব্দুল আজিজ খান এর সভাপতিত্বে ও ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও অত্র প্রতিষ্ঠানের সভাপতি জনাব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ। তিনি বলেন হোমিওপ্যাথি একটা বিকল্প চিকিৎসা। এই ব্যাবস্থাকে শক্তিশালী করতে আমাদের প্রায়োগিক জ্ঞান বাড়াতে হবে চর্চা অব্যাহত রাখতে হবে। তিনি কলেজের উন্নয়নে জায়গা জমি ভবন নির্মাণসহ সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস ও প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা প্রতিনিধি এ্যাড. আতাউর রহমান ভূইয়া, অত্র প্রতিষ্ঠানের দাতা সদস্য  এ্যাডভোকেট আজিজ উল্লাহ, মানিকগঞ্জ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র টিটিসির অধ্যক্ষ জনাব নূর অতএব আহমেদ, গড়পাড়া হাফিজ উদ্দিন ডিগ্রী কলেজের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ডাঃ অধ্যাপক নাজমুল হাসান সৈনিক, ডিপ্লেইড ল্যাবঃ লিঃ এর ডিএমএম জনাব সজিব আহমেদ, ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ সাজ্জাত কবির, মানিকগঞ্জ কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের উপাধাক্ষ্য জনাব নূর মোহাম্মদ খান ইমন,ঢাকা হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ মো. লালন আলী, অত্র প্রতিষ্ঠানের উপাধাক্ষ্য ডাঃ এ কে এম কায়সার আহমেদ প্রমুখ। জেলা প্রশাসকের হাত থেকে সন্মাননা গ্রহন করেন  ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মো শরিফুল ইসলাম, নাসির আহমেদ, মো. লুৎফর রহমান, তাওহিদুল ইসলাম, মো. ইউসুফ আলী,মো. আনোয়ার সাদাত, অবিনাশ সরকার, পংকজ কুমার সরকার প্রমুখ। 
শিক্ষার্থীরা সম্মাননা পেয়ে আনন্দিত হন এবং বানিজ্যিকভাবে নয় অর্জিত বিদ্যা মানবতার কল্যানে ব্যায় হবে সকল প্রাণের সুস্থতা জন্য আমরা কাজ করবো এই প্রত্যয় গ্রহন করা হয়।