মামুনুল হক গ্রেপ্তারে সিলেটে সতর্ক অবস্থানে পুলিশ

মামুনুল হক গ্রেপ্তারে সিলেটে সতর্ক অবস্থানে পুলিশ
ছবিঃ সংগৃহীত

সিলেট অফিস।। ১৯ এপ্রিল, সোমবার।। হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেপ্তারের পরপর সকল ধরণের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি এড়াতে সিলেটে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এছাড়া যে কোনো ধরনের অপতৎপরতা এড়াতে থাকছে গোয়েন্দা নজরদারি। 

সম্প্রতি মোদীবিরোধী আন্দোলনকে কেন্দ্র করে হেফাজতে ইসলামের দেশজুড়ে জ্বালাও-পোড়াও তাÐবের পর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে যায়। বিভিন্ন থানায় থানায় বাঙ্কার বানিয়ে এলএমজি গার্ড বসানো হয়। কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন সহিংসতায় জড়িতরাসহ গ্রেপ্তার করা হয় নির্দেশদাতা হিসেবে কেন্দ্রীয় নেতাদের। এরই ধারাবাহিকতায় দীর্ঘ নজরদারি শেষে রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে বহুল আলোচিত মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে গ্রেপ্তারের পর সিলেটে সর্তক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের বলেন, মামুনুল হকের গ্রেপ্তারকে কেন্দ্র করে যাতে কেউ বিশৃঙ্খ পরিস্থিতি সৃষ্টি না করতে পারে সেজন্য পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। পাশাপাশি মাঠে রয়েছে সাদা পোশাকের পুলিশ সদস্যরাও। চলমান লকডাউন ভেঙে যে কোনো ধরনের অপতৎপরতা এড়াতে পুলিশ সদস্যরা সর্তক অবস্থায় রয়েছেন বলেও জানান তিনি। আর সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. লুৎফুর রহমান বলেন, আগে থেকেই আমাদের নিরাপত্তা জোরদার ছিল। এখনও সেটি আছে। সকল ধরণের অপতৎপরতা এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। এদিকে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) হারুন-অর-রশিদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিভিন্ন নাশকতার ঘটনায় তদন্তে সংশ্লিষ্টতার প্রাথমিক প্রমাণের ভিত্তিতেই হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি বলেন, ২০২০ সালে মোহাম্মদপুর থানায় হামলা ও নাশকতার অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় মামুনুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি ওই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। আমরা মামলাটি তদন্ত করছিলাম, তদন্তে তার সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এছাড়া তার বিরুদ্ধে সারাদেশে পুলিশের ওপর পরিকল্পিতভাবে হামলা, থানায় হামলা, রেজিস্ট্রার অফিসে হামলা-ভাঙচুরসহ অনেকগুলো মামলা রয়েছে। এসব মামলার তদন্ত চলছিল, পাশাপাশি আমরা দীর্ঘদিন ধরে তাকে নজরদারিতে রেখেছিলাম।