মসজিদ কমিটির সভাপতি পদ নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৭

মসজিদ কমিটির সভাপতি পদ নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৭
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের।। স্টাফ রিপোর্টার।। গাইবান্ধা, ০৯ এপ্রিল, শুক্রবার।। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের ছিলামনি জামে মসজিদের সভাপতির পদ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (০৯ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও মসজিদ কমিটি সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন থেকে ছিলামনি গ্রামের আমির উদ্দনের ছেলে দুলা মিয়া, মুকুল মিয়া ও নয়া মিয়া মসজিদের জমিজমা এবং কমিটির সভাপতি পদ নিয়ে অন্যদের সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন। সংখ্যাগরিষ্ঠ সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষ তাদের কর্মকা-ে বীতশ্রদ্ধ হন। তারপরও সভাপতির পদে ওই পরিবারের দুলা মিয়া নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা করেন।

মসজিদে উপস্থিত সর্বস্তরের মুসল্লিদের ভোটে এবং সমর্থনে স্থানীয় শাহাব উদ্দিন সভাপতি নির্বাচিত হন। শুক্রবার দুলা মিয়ারা তিন ভাই ও তাদের লোকজন শাহাব উদ্দিনকে সভাপতি করার এই সিদ্ধান্ত না মেনে নিলে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে মুসুল্লিদের সাথে তাদের লোকজন লাঠিসোটা ধারালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

তাদের হামলায় কমিটির সভাপতি শাহাব উদ্দিন, সদস্য লাল মিয়া, অর্থ সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম, সদস্য মতলব মিয়া, খতিব ক্কারী মোস্তাক আহম্মেদ আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ, গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালসহ আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনে।

স্থানীয় স্কুল শিক্ষক লাভলু মিয়া জানান, দীর্ঘদিন থেকে দুলা মিয়ার পরিবারের লোকজন মসজিদের জমিজমা, দোকানপাটে নিজেদের কর্তৃত্ব নিতে এবং কমিটি গঠন নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবস্থান নেন। মুসুল্লিরা তাদেরকে না মানলেও তারা জোর করে কমিটিতে আসতে চান। সেই কারণেই মূলত এই বিরোধ ও সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়।

ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার আলম সরকার জানান, ইতোপূর্বে তিনি নিজে উপস্থিত থেকে সকলের সাথে বসে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছিলেন। কিন্তু দুলা মিয়ার পরিবারের লোকজন তা না মানায় বিরোধের সৃষ্টি হয়।

সুন্দরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত বুলবুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। তিনি বলেন, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে, মসজিদ কমিটি গঠন নিয়েই এই দ্বন্দ্ব। তবে বিষয়টি আরও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।