মহাসড়কের স্পিডব্রেকারে প্রাণ গেল গৃহবধূর!

মহাসড়কের স্পিডব্রেকারে প্রাণ গেল গৃহবধূর!
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের।। স্টাফ রিপোর্টার।। ১১ মে, মংগলবার।। বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ অংশের একটি স্পিডব্রেকার অতিক্রম করার সময় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে প্রাণ হারালেন এক গৃহবধূ।এসময় মোটরসাইকেল চালক স্বামীও আহত হয়েছে। নিহত পাপিয়া বেগম (৩০) বগুড়া শহরের বিসিক ফুলবাড়ী উত্তরপাড়া এলাকার স্বর্ণ ব্যবসায়ী আরিফুল ইসলাম বাবুর স্ত্রী। পাপিয়া দুই সন্তানের জননী ছিল।

রবিবার (৯ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ এলাকায় স্পিডব্রেকারে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। বাবু স্ত্রী পাপিয়াকে নিয়ে সাদুল্যাপুরে শ্বশুর বাড়ি থেকে বগুড়ার উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেল আসছিল।

আহত আরিফুল ইসলাম জানান, আমার শাশুড়ি গত শুক্রবার বার্ধক্য জনিত কারণে মারা যান। স্ত্রীকে ওই দিন সেখানে গিয়ে দাফন শেষে অবস্থানকালে রবিবার সন্ধ্যায় কুলখানী সম্পন্ন করে বগুড়ার পথে রওনা দেই। পথিমধ্যে জেলার গোবিন্দগঞ্জ গুলাপবাগ এলাকায় পৌঁছিলে একটি গতিরোধক অতিক্রম করার সময় অসাবধানতাবশত চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়েন পাপিয়া বেগম। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে আমি নিজেও সামান্য আঘাত পাই। এতে পাপিয়া বেগমের মাথায় প্রচণ্ড আঘাত লেগে গুরুতর আহত হয়।

স্থানীয়দের সহযোগিতায় দ্রুত বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১১ টার সময় পাপিয়া বেগম মারা যান।

বগুড়া সদর থানার এস আই মনতাজ আলী জানান, গতরাতে লাশ (শজিমেক) মর্গে রাখা হয়েছিল। এ ঘটনায় লাশ ময়নাতদন্ত করে সোমবার (১০ মে) দুপুরে নিহতের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।