মিয়ানমার সেনাদের স্কুলে গুলিবর্ষেণে ছয় শিশু মৃত্যু

মিয়ানমার সেনাদের স্কুলে গুলিবর্ষেণে ছয় শিশু মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

এক গ্রামীণ স্কুলের উপর হেলিকপ্টার থেকে গুলি চালাল মায়ানমারের সেনা। এই ঘটনায় কমপক্ষে ছয়জন শিশুর মৃত্যুর খবর মিলেছে। জখম হয়েছেন আরও ১৭ জন। এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা জারি রয়েছে। প্রসঙ্গত, গত বছরের শুরুর দিকেই মায়ানমারের সামরিক বাহিনী দেশের নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে। তারপর থেকে মায়ানমারে একাধিক হিংসাত্মক ঘটনা লেগেই রয়েছে। এবার সন্ত্রাসবাদী দমন অভিযানে সেনাবাহিনীর গুলিতে প্রাণ গেল নিষ্পাপ শিশুদের।

সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, মায়ানমারের সাগাইং অঞ্চলের লেট ইয়েট গ্রামের বৌদ্ধ মঠে অবস্থিত স্কুলে বিদ্রোহীরা আস্তানা করে রয়েছে। মায়ানমারের সেনার উপর আক্রমণ করারই ছক কষছিল তারা। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, তাই তাদের শেষ করতেই সেই স্কুলে গুলি চালায় সামরিক বাহিনী। জানা গিয়েছে, অনেক শিশু গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা গিয়েছে। নিরাপত্তার কারণে পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই বাসিন্দা জানিয়েছেন, পরে সামরিক বাহিনী মৃতদেহগুলোকে ১১ কিলোমিটার (৭ মাইল) দূরে একটি শহরে নিয়ে যায় এবং সেখানে তাদের কবর দেওয়া হয়।

সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, মায়ানমারের সাগাইং অঞ্চলের লেট ইয়েট গ্রামের বৌদ্ধ মঠে অবস্থিত স্কুলে বিদ্রোহীরা আস্তানা করে রয়েছে। মায়ানমারের সেনার উপর আক্রমণ করারই ছক কষছিল তারা। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, তাই তাদের শেষ করতেই সেই স্কুলে গুলি চালায় সামরিক বাহিনী। জানা গিয়েছে, অনেক শিশু গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা গিয়েছে। নিরাপত্তার কারণে পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই বাসিন্দা জানিয়েছেন, পরে সামরিক বাহিনী মৃতদেহগুলোকে ১১ কিলোমিটার (৭ মাইল) দূরে একটি শহরে নিয়ে যায় এবং সেখানে তাদের কবর দেওয়া হয়।