যাত্রীবাহী বাস থেকে যুবতীকে নামিয়ে ধর্ষণচেষ্টা, বাঁচাতে এসে নৈশপ্রহরীর মৃত্যু

যাত্রীবাহী বাস থেকে যুবতীকে নামিয়ে ধর্ষণচেষ্টা, বাঁচাতে এসে নৈশপ্রহরীর মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

এস এম আওলাদ হোসেন,লক্ষ্মীপুর।।লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে বাস টার্মিনাল এলাকায় পথভোলা যুবতীকে (২২) বাস থেকে নামিয়ে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণচেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনা দেখতে পেয়ে চিৎকারে টার্মিনালের পাহারাদার মো. শাহজাহানের (৪৮) মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (৩ জুন) রাত ৮টার দিকে বাস টার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক জানিয়েছেন, চিৎকার করার কারণে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পাহারাদার শাহজাহানের মৃত্যু হয়েছে।
ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়। মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে গোপনীয়তার স্বার্থে নাম-পরিচয় জানাননি তিনি।

ভূক্তভোগী তরুণি জানিয়েছেন, নোয়াখালীর চাটখিল থেকে সোনাপুর যাওয়ার জন্য তিনি জননী বাসে উঠেন। তিনি রামগঞ্জে এসে ভুল বুঝতে
পারেন। বিষয়টি চালক ও তাঁর সহযোগিকে জানালে তাঁকে নোয়াখালীর বাসে তুলে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বাসে অপেক্ষা করতে বলেন। একপর্যায়ে ২ যুবক তাঁকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা করে। বাঁধা দিলে হেলপারকে মারধর করা হয়। তাঁর কাছে থাকা ৩ হাজার টাকা নিয়ে গেছে।

থানা পুলিশ ও জননী বাস সার্ভিসের চালকের সহযোগী (হেলপার) আজাদ হোসেন জানায়, রামগঞ্জের পশ্চিম কাজীরখীল গ্রামের আখন বাড়ীর এমরান হোসেন (২৬) সহযোগীকে নিয়ে তরুণিকে জোরপূর্বক বাস থেকে নামিয়ে নিয়ে যায়। 

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে তরুণিকে নামিয়ে বাসটার্মিনালের পিছনের টয়লেটের পাশে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা করা করা হয়। এসময় টার্মিনালের পাহারাদার শাহজাহানসহ কয়েকব্যক্তি ঘটনাস্থলে পৌঁছলে সহযোগীসহ এমরান পালিয়ে যায়।শাহজাহান চিৎকার করার এক পর্যায়ে অচেতন হয়ে পড়েন। তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথেই মৃত্যু হয় বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন। 

শাহজাহান রামগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম কাজীরখীল গ্রামের দেওয়ান বাড়ীর বাসিন্দা। খবর পেয়ে রামগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র মামুনুর রশিদ আকন্দ ও রামগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দিবাকর রায় ঘটনাস্থলে যান। এসময় তরুণিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।