রাজাপুরে সন্ত্রাসীদের হুমকিতে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীর জীবন কাটছে নিরাপত্তাহীনতায়

রাজাপুরে সন্ত্রাসীদের হুমকিতে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীর জীবন কাটছে নিরাপত্তাহীনতায়
ছবি: সংগৃহীত

ঝালকাঠি প্রতিনিধি।। রাজাপুরের জগাইরহাটে কুপিয়ে একজনকে পঙ্গু ও একজনের হাত ভেঙ্গে দেয়ার ঘটনায় এজাহারভূক্ত আসামী সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীরা নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছে বলে জানাগেছে। থানা পুলিশ গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালালেও উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রামের সংঘবদ্ধ আসামীরা গ্রেপ্তার এড়িয়ে বাদী-স্বাক্ষী পরিবারের সদস্যদের ক্রমাগত হুমকি দিচ্ছে বলে তারা অভিযোগ করেছে। অন্যদিকে শুক্তাগড় ইউনিয়নের জগাইরহাট গ্রামের বাসিন্দারা (মামলা নং-৪ তাং-৯/৬/২০২২ইং) সংঘবদ্ধ এ সন্ত্রাসীদের মাদক ব্যবসাসহ নানা অপরাধের বিষয় তুলে ধরে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন।
 

মামলার এজাহারনামীয় আসামীরা হচ্ছে, সজল (২২).ও রাজন (২৫) পিতা-খাদেম হাং, নুর হোসেন হাং (৫০), খাদেম হাং (৪৫) ও নাসিমা বেগম (৪০) পিতা মৃত.
মোদাচ্ছের হাং, আলী হোসেনের পুত্র শাহীন হাং (৩২), আলী হোসেন মোল্লার পুত্র ইব্রাহীম মোল্লা মিঠু (২৫), মৃত. ছত্তার শেখের পুত্র মিজান শেখ (৪০), মনসুর মোল্লার পুত্র সুমন মোল্লা (৩২) ও দেলোয়ার হাংয়ের পুত্র
রেজাউল হাং (২৫)।

মামলার এজাহার ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, গত ৮জুন রাত ৮টার দিকে সাবেক ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান আঃ রব হাওলাদার ও হেমায়েত হোসেন বাড়ীর সামনের রাস্তায় দাড়িয়ে কথাবার্তা বলার সময় পূর্ব শত্রুতার জের পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র-লাঠি নিয়ে তাদের উপর হামলা চালিয়ে বেধরক মারধর করে। হামলায় হেমায়েত হোসেনে হাতের কব্জী ও কয়েকটি আঙ্গুল ভেঙ্গে
গেলে বাদী ও সে দৌড়ে তাদের ঘরের মধ্যে আশ্রয় নিয়ে সন্ত্রাসীরা ধাড়ালো রামদা-ছেনা দিয়ে কুপিয়ে পুরো ঘরের বেড়া-টিন ক্ষতবিক্ষত করে চলে যায়।

 পরবর্তীতে ঐদিন রাত পৌনে ৯টার দিকে রব হাওলাদারের ভাগ্নে নাসির উদ্দিন (৫৬) জগাইরহাট বাজার থেকে বাড়ী ফেরার পথে একই সন্ত্রাসীরা ধাড়ালো রামদা-ছেনা নিয়ে তার উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে ডান হাত কেটে ফেলে। পরে স্থানীয়রা আহত নাসির ও হেমায়েরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের চিকিৎসকরা আশংকাজন অবস্থায় নাসির উদ্দিনকে উন্নত
চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরন করেন।

মামলার বাদী সাবেক ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান আঃ রব হাওলাদার জানায়, নাসিরের ডান হাতের রগ ও হাড় কেটে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন হওয়া থেকে রক্ষা করতে
পারলেও স্থায়ী ভাবে পঙ্গু হয়ে যাবে বলে পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছে।মামলার এজাহারভূক্ত আসামীরা বর্তমানে বাদী-স্বাক্ষীসহ আহতদের পরিবারকে ক্রমাগত হুমকি দেয়ায় চরম নিরাপত্তহীনতায় দিন কাটাচ্ছে বলে দাবী করেছেন।
 

 এ ব্যাপারে মামলার আইও রাজাপুর থানার এসআই নাজমুল জানায়, তদন্তের দায়িত্ব পাওয়ার পর তিনি আসামীদের গ্রেপ্তারে সর্বচ্চো চেষ্টা চালাচ্ছেন।
শীঘ্রই আসামীদের গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হবে।