রতন সরকারকে অবাঞ্ছিতের এখতিয়ার  রংপুর প্রেসক্লাবের নেই: বিএমএসএফ

রতন সরকারকে অবাঞ্ছিতের এখতিয়ার  রংপুর প্রেসক্লাবের নেই: বিএমএসএফ
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের, স্টাফ রিপোর্টার।। ০৫ এপ্রিল,  সোমবার।। সম্প্রতি সময় টিভির ব্যুরো প্রধান, সাহসী সাংবাদিক রতন সরকারকে রংপুর প্রেসক্লাব অবাঞ্ছিত ঘোষণা শিরোনামে সংবাদটি কেন্দ্রীয় বিএমএসএফের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং বানিজ্যিক ভাবে করা হয়েছে এমনটি আমাদের কাছে প্রতীয়মান। এঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ ও প্রতিবাদ করেছেন কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর। এক কথায় রতন সরকারকে অবাঞ্ছিতের কোন এখতিয়ার রংপুর প্রেসক্লাবের নেই। 

৫ এপ্রিল গণমাধ্যম পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রংপুরে রতন সরকারের আকাশচুম্বি ইমেজ খাটো করতে তার বিরুদ্ধে মামলাকারী পক্ষসহ আরো দুটিপক্ষ মিলে প্রেসক্লাবকে বলিরপাঠা বানিয়ে এমন একটি সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে। প্রকৃতপক্ষে রতন সরকার যেহেতু তাদের কোন সদস্য নয় তাই তাকে নিয়ে মন্তব্য কিংবা অবাঞ্ছিত করার সুযোগ প্রেসক্লাবের নেই। প্রেসক্লাবকে এমন হঠকারী, নৈতিকতা ও পেশাবিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়েছে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম-বিএমএসএফ। 

সম্প্রতি কিছু ভিত্তিহীন অভিযোগের ভিত্তিতে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের রংপুর জেলা সমন্বয়কারি ও দেশের প্রথম শ্রেণীর সংবাদ ভিত্তিক চ্যানেল সময় টিভির বিশেষ প্রতিনিধি রতন সরকারকে প্রেসক্লাব এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে এবং তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ করেছে। বিষয়টি সকল মহলকে বিস্মিত করেছে এবং সাংবাদিক সমাজকে উদ্বিগ্ন করেছে।

বিএমএসএফ মনে করে; একজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এ ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়। যা একটি দায়িত্বশীল সাংবাদিক সংগঠনের নিকট থেকে কোনভাবেই কাম্য নয়। রংপুরের সাংবাদিকদের স্বার্থরক্ষায় অতীতের সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামসহ সকল সাংবাদিক সংগঠনগুলো ভ্রাতৃপ্রতিম সম্পর্ক বজায় রেখে পথচলা অব্যাহত রাখবে বলে আমরা মনে করি।