রংপুরে শুরু হচ্ছে হাইটেক পার্কের নির্মাণকাজ

রংপুরে শুরু হচ্ছে হাইটেক পার্কের নির্মাণকাজ
রংপুর হাইটেক পার্ক প্রকল্পের নকশা

তৌহিদুল ইসলাম, নিউজ করেসপনডেন্ট।। অবশেষে সাড়ে চার বছর পর রংপুরে শুরু হচ্ছে হাইটেক পার্কের নির্মাণকাজ। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৬ মে) বহুপ্রত্যাশিত এ পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হতে যাচ্ছে।

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক রংপুর হাইটেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকাজের উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে। রংপুর জেলা পরিষদ কমিউনিটি সেন্টারে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (গ্রেড-১) বিকর্ণ কুমার ঘোষ স্বাক্ষরিত একটি আমন্ত্রণপত্রে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ভারতীয় অর্থায়নে রংপুরসহ বাংলাদেশের ১২টি জেলায় আইটি/হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে এবার রংপুরে এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হতে যাচ্ছে। কথা ছিল ২০১৮ সালে রংপুরে হাইটেক পার্ক নির্মাণ শুরু হবে। কিন্তু নির্মাণকাজ শুরুর আগেই ২০২০ সালের জুনে এই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়। এ নিয়ে হতাশ ছিল রংপুরবাসী। দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে রংপুর সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খলিশকুড়ি এলাকায় বহুল প্রতীক্ষিত হাইটেক পার্কের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে।

এদিকে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (গ্রেড-১) বিকর্ণ কুমার ঘোষ স্বাক্ষরিত আমন্ত্রণপত্রে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইতোমধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়িত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সার্বিক নির্দেশনায় ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার কাজ দৃঢ় প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানকে ঘিরে বর্ণাঢ্য কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। সকাল ১০টায় ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করবেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এরপর মোনাজাত শেষে সকাল পৌনে ১১টায় রংপুর জেলা পরিষদ কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এতে সভাপতিত্ব করবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ ছাড়া থাকবেন জেলা পর্যায়ে আইটি/হাইটেক পার্ক স্থাপন (১২টি জেলা) প্রকল্প পরিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ, রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের পরিচালক হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (গ্রেড-১) বিকর্ণ কুমার ঘোষ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর আদর্শবিষয়ক তথ্যচিত্র ও ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নপূরণের তথ্যচিত্র এবং প্রকল্পের উদ্যোগে আইটি/হাইটেক পার্ক রংপুরের তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হবে। এ ছাড়া ফ্রিল্যান্সারদের মধ্যে ল্যাপটপ বিতরণ করা হবে।