লালানগরে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট ও দোয়া চাচ্ছেন মেম্বার প্রার্থীরা

লালানগরে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট ও দোয়া চাচ্ছেন মেম্বার প্রার্থীরা
ছবিঃ সংগৃহীত
এম. মতিন, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।। এখনো প্রতীক বরাদ্দ হয়নি। তারপরও থেমে নেই সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থীদের প্রচারণা। আসন্ন আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৫ নং লালানগর ইউনিয়নের সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থীরা পুরোদমে কাকডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট ও দোয়া চেয়ে রীতিমতো মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।
এদিকে সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থীদের ভোট ও দোয়া প্রার্থনা ধরন দেখে অনেকটা লালানগর ইউনিয়নের পাড়া- মহল্লায় এবং চায়ের দোকানে নির্বাচনী আমেজ শুরু হয়ে গেছে পুরোদমে। তবে, এলাকায় গত ৫ বছরে কে কি উন্নয়ন করেছেন, কোন মেম্বার কাকে হেনস্থা ও হয়রানি করেছে, বিচারের নামে কে কার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে, তার হিসাব-নিকেশ কষতে শুরু করেছেন ভোটাররা।
জানা গেছে আসছে ইউপি নির্বাচনে ১নং লালানগর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে নিজের প্রার্থিতা জানান দিয়ে মাঠে ময়দানে রীতিমতো চষে বেড়ানো সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন- ১নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার মীর হানিফ, হারুনুর রশিদ মাসুম, জাহেদুল ইসলাম খোকন ও শাহ আলম বৈদ্য। ২ নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার কাজী মঈন উদ্দিন, মোঃ হেলাল উদ্দিন ও মোঃ ওমর ফারুক। ৩ নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার মোঃ শাহ আলম, নুরুল ইসলাম বাচা ও মোহাম্মদ পেয়ারু। ৪নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেয়র আয়ুব আলী, দুলাল মেম্বার ও ডালিম নাথ। ৫নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার মোঃ আবু তালেব, মোঃ সুমন, ইলিয়াছ হায়দার ও মোঃ হানিফ। ৬ নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার দিদারুল আলম ও শহিদুল আলম। ৭ নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার আবুল কালাম ও মোঃ নুরুল আলম। ৮নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার কাঞ্চন মিয়া, বেলাল বিন সত্তার, নাজিম মেম্বার ও রঞ্জু। ৯নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার মোঃ হারুন ও মোহাম্মদ এমজাদ।
এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী বন্ধুবৎসল শিক্ষিত ব্যাক্তি ব্যবসায়ী নুরুল আলম। সদালপী সহজসরল এই প্রার্থী আশাবাদব্যক্ত করেছেন, ভোটারেরা সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারলে তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে মেম্বার নির্বাচিত হবেন।
নিজের প্রার্থিতা জানান দিয়ে ২ নং ওয়ার্ড বাসির সকলের কাছে সমর্থন ও দোয়া চেয়েছেন মো হেলাল উদ্দিন। তিনি বলেন, আমাকে আপনাদের সন্তান হিসেবে সমর্থন দিয়ে আপনাদের পাশে থেকে ওয়ার্ড বাসি, মেহনতী মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে “জননেত্রী শেখ হাসিনার” উন্নয়ন ধারাকে বাস্তবায়ন করার সুযোগ দিন।
কাজী মঈন উদ্দিন বলেন, আমি বর্তমান ইউপি সদস্যের দায়িত্ব পালন করছি, তারচে আমি একজন আ.লীগ পরিবারের সন্তান, আমি ছাত্রজীবন থেকেই আ.লীগ রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকে দলীয় সকল কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেছি। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ড থেকে আবারো মেম্বার প্রার্থী হচ্ছি। ওয়ার্ড বাসী যদি আমাকে আবারো ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তাহলে ২ নং ওয়ার্ডের অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করবো।
দিদারুল আলম বলেন, ৬নং ওয়ার্ডবাসী আমাকে যদি আরেকবার সুযোগ দেয় তাহলে আমি জনসেবায় মুরব্বিদের পাশে নিয়ে নিজেকে জনগণের মাঝে উৎসর্গ করবো, ইনশাআল্লাহ। আমি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা চাই।
অপর প্রার্থী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শহিদুল আলম বলেন, একটি সুখী সমৃদ্ধ -সুন্দর দেশ ও সমাজ নির্মানে সর্বপ্রথম ওয়ার্ড পর্যায়ে উন্নয়ন প্রয়োজন। তাই ৬নং ওয়ার্ডকে একটি মডেল ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলতে তিনি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সমর্থন ও ভোট দেওয়ার জন্য ওয়ার্ডবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।
আগামী আসন্ন ইউপি নির্বাচনে মেম্বার জয়যুক্ত হয়ে ৫নং ওয়ার্ডের সুবিধা বঞ্চিত ও অবহেলিত মানুষের সেবা করতে চান মোঃ সুমন। 
এই ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার আবু তালেব আবুও আসন্ন নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে নিজের অবস্থান আরো সুসংহত করতে প্রতিনিয়ত (৫নং ওয়ার্ডের) প্রতিটি গ্রামের মোড়ে, চায়ের দোকানে ও বিভিন্ন রাস্তাঘাটে ও পাড়া মহল্লায় সাধারণ মানুষের কাছে ছুটে যাচ্ছেন ও দিনরাত ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করছেন। এরি মধ্যে তিনি এলাকায় মুরব্বিদের সাথে কুশল বিনিময় ও নানান সমস্যা নিয়ে তরুণদের সাথে মতবিনিময় করছেন।
৯নং ওয়ার্ডের মেম্বারপ্রার্থী মোহাম্মদ এমজাদ বলেন,  ৯নং ওয়ার্ডকে দারিদ্র মুক্ত, সু-শিক্ষাবান্ধব পরিবেশ, মাদক মুক্ত সমাজ, আদর্শ গ্রাম হিসাবে গড়ে তুলার নিমিত্তে আমি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউ‌পি মেম্বার পদে প্রার্থী হ‌য়েছি। এর জন্য আমি আমার গ্রামের মুরব্বী, ভাই, বন্ধু, মা, বোন,পাড়া প্রতিবেশীসহ ৯নং ওয়ার্ড বাসির নিকট ভোট ও দোয়া কামনা করছি।
এবারের নির্বাচনকে প্রেস্টিজ ইস্যু হিসেবে নিয়েছে জানিয়ে ৯ নং ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার মোঃ হারুন বলেন, ৯ নং ওযার্ডের সকলের নিকট আমার উদাত্ত আহ্বান, আমাকে আপনাদের সমর্থন দিয়ে পুনারায় আপনাদের পাশে থেকে ওয়ার্ডবাসী, মেহনতী মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে উন্নয়ন ধারাকে বাস্তবায়ন করার সুযোগ দিন।
কোন প্রার্থীকে নির্বাচিত করলে এলাকার উন্নয়ন হবে, কার কাছ থেকে নাগরিক সুবিধা পাবে এসব নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। তবে, ভোটারদের মুখে একটায় বক্তব্য যোগ্য ব্যক্তিকেই আসন্ন নির্বাচনে নিজেদের ওয়ার্ডের অভিভাবক নির্বাচিত করবেন।