লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং খুলশীর সেক্রেটারী হলেন মীরসরাইয়ের লায়ন রাশেদা আক্তার মুন্নি

লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং খুলশীর সেক্রেটারী হলেন মীরসরাইয়ের লায়ন রাশেদা আক্তার মুন্নি
ছবিঃ সংগৃহীত

মোহাম্মদ হাসান।। স্টাফ রিপোর্টার।। ০৯ মে, রবিবার।।  চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ের আলোকিত নারী জোরারগঞ্জ মহিলা কলেজ পরিচালনা পর্ষদ এর সভাপতি লায়ন রাশেদা আক্তার মুন্নি লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং খুলশীর ২০২১-২২ সেবা বর্ষের কার্যনিবাহী পরিষদের নির্বাচনে ক্লাব সেক্রেটারী পদে নির্বাচিত হয়েছেন। 

লায়ন রাশেদা আক্তার মুন্নি ক্লাব সেক্রেটারী নির্বাচিত হওয়ায় বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠান শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে তিনি অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসছেন। 

প্রসঙ্গত, লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল একটি অরাজনৈতিক সেবামূলক সংগঠন। এটি ১৯১৬ সালে মেলভিন জন্স কর্তৃক শিকাগোতে প্রতিষ্টিত হয়। ২০১৫ সালের মধ্যে সারাবিশ্বের ২০০ টি দেশে ১.৪মিলিয়ন সদস্য নিয়ে ৪৬০০০ হাজার স্থানীয় ক্লাব গঠিত হয়। এর সদর দপ্তর যুক্তরাষ্টের ওয়ার্ক ব্রুক, ইলিয়ন্স এ অবস্থিত।

লায়ন আন্দোলনের উদ্দেশ্য:
১। লায়ন্স ক্লাব নামে প্রতিষ্ঠিত ক্লাবসমূহের কার্যক্রম পরিচালনা ও পর্যবেক্ষণ পদ্ধতি গড়ে তোলা;
২। লায়ন্স ক্লাবের কর্মসূচি এবং প্রশাসনের কাজের ধারার উন্নয়নের সমন্বয় করা;
৩। বিশ্বের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি গড়ার চেতনাকে উজ্জীবিত ও পৃষ্ঠপোষকতা করা;
৪। সুশাসন ও সুনাগরিকত্ব -এ আদর্শকে ধারণ করা;
৫। কমিউনিটির নাগরিক, সাংস্কৃতিক এবং নৈতিক উন্নয়নে সক্রিয় অংশগ্রহণ;
৬। বন্ধুত্বের বন্ধন, সুসম্পর্ক এবং পারস্পরিক বোঝাপড়ার মধ্যে ক্লাবগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করা;
৭। জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট প্রতিটি বিষয়ে উন্মুক্ত আলোচনার ব্যবস্থা করা, অবশ্য এতে বিতর্কিত রাজনীতি এবং ধর্মীয় ভেদাভেদের ওপর আলোচনা থাকবে না;
৮। কোনো রকম ব্যক্তিগত আর্থিক পুরস্কারের আশা না করে সেবাধর্মী যে সব মানুষ কমিউনিটির উন্নয়নে কাজ করতে চায় তাদেরকে উৎসাহিত করা, শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য, পেশা, গণকল্যাণমূলক কাজ এবং বেসরকারি উদ্যোগের মধ্যে দক্ষতা বৃদ্ধির উৎসাহ দান এবং উচ্চ নৈতিক মান প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করা। দাতব্য কর্মকান্ড সার্ভিস ক্লাব সংগঠন হিসেবে লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল -এর বিশেষ দৃষ্টি থাকে কল্যাণমূলক কাজে ব্যয় করার জন্য অর্থ সংগ্রহ করা। সাধারণ জনগণের কাছ থেকে লায়ন্স ক্লাব যে তহবিল গড়ে তোলে তা দাতব্য কাজে ব্যয় হয়, প্রশাসনিক ব্যয় কড়াকড়িভাবে আলাদা রাখা হয় যা সদস্যগণের চাঁদা থেকে বহন করা হয়। কোনো ক্লাবের দাতব্য হিসাব-এর জন্য সংগৃহীত টাকা অন্য কোনো একক ক্লাবের স্থানীয় কমিউনিটির কল্যাণে নির্দিষ্ট প্রকল্পে পাঠানো হয়।