শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত ওসমানীনগরের সুমন এখনো অধরা

শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত ওসমানীনগরের সুমন এখনো অধরা
ছবি: সংগৃহীত

সিলেট।। ২০ মার্চ, শনিবার।। সিলেটে সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত খায়রুল আলম সুমন (৪০) কে গত ১০ দিনেও  গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। সুমন সিলেট জেলার ওসমানীনগরের দয়ামীরের মানিক মিয়ার ছেলে।

গত ৯ মার্চ দুপুরে সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরান থানাধীন সৈয়দপুরের এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শিশুটির পিতা বাদী হয়ে শাহপরান থানায় ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গত ১০ মার্চ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকেই অভিযুক্ত সুমন পলাতক রয়েছেন।

জানা যায়, গত ৯ মার্চ দুপুরে সাড়ে ৩ বছরের শিশুটি খায়রুল আলম সুমনের বাসায় গিয়ে তার মেয়ের সাথে খেলা করছিল। এ সময় সুমন শিশুটিকে প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয়ে একাধিকবার যৌন পীড়ন করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। শিশুটি তখন কান্নাকাটি করলে সুমন তখন এ বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেয়। পরবর্তীতে শিশুটির মা শিশুটিকে গোসল করাতে নিয়ে গেলে বিষয়টি ধরা পড়ে।

তখন শিশুটিকে জিজ্ঞেস করলে সে তার তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে। পরে শিশুটিকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি)- এ ভর্তি করা হয়।

মামলার বাদী শিশুটির পিতা বলেন, ‘আমার সাড়ে ৩ বছরের মেয়ে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করে সুমন। পুলিশ এখন পর্যন্ত সুমনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ইতোমধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা পেয়েছে।’
সিলেট শাহপরান থানার ওসি সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন, ‘সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার দায়ে শিশুটির পিতা খায়রুল আলম সুমন নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন । পুলিশ আসামীকে ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।’