সুন্দরগঞ্জে প্রাক্তন ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ঘটনায় আটক-৪

সুন্দরগঞ্জে প্রাক্তন ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ঘটনায় আটক-৪
ছবিঃ সংগৃহীত

আবু তাহের, স্টাফ রিপোর্টার।।  ২০ মার্চ, শনিবার।।  গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ২ নং সোনারায় ইউনিয়নে জমি-জমা নিয়ে বিরোধে চাচাকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে তিন জনকে আটক করেছেন। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের পশ্চিম বৈদ্যনাথ গ্রামের মৃত খুঁজিয়া শেখের ছেলে (সাবেক ইউপি সদস্য) মুসলিম হাজীর সাথে তার আপন ভাই মৃত মছির উদ্দিনের ছেলে সাজু, দুলা ও জগদুলের পারিবারিক বিষয় ও জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জের ধরে শুক্রবার (১৯ মার্চ) সংঘর্ষ ঘটে এবং মুসলিম হাজির বাড়িতে আগুন লাগিয়ে একটি ঘর পুড়ে ফেলে। সংঘর্ষে মুসলিম হাজী ও তার ছেলে মাহাবুর (৫২), মোজাম্মেল (৫০), মোখছেদ (৪৫) ও স্বজন ছলেমানের স্ত্রী মালেকা (৩৪), রফিকুলের স্ত্রী মাসুদা (৩৫) গুরুত্বর আহত হয়। 

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। এদের মধ্যে সাবেক ইউপি সদস্য মুসলিম হাজীর অবস্থার অবনতি হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথিমধ্যে তিনি মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে আটক করেন। এই ঘটনায় নিহত ব্যক্তির ছেলে মঞ্জু মিয়া নিজেই বাদি হয়ে সুন্দরগঞ্জ থানায়, ১৪৩/৪৪৮/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০২/৩০৭/৪২৭/৩৮০/১১৪/৩৪/ ধারায় গ্রেফতারকৃত জবেদুল মিয়াসহ এজাহার নামীয় ১৫ জন অজ্ঞাতনামাসহ ৫/৭ জনকে ঘটনার সংগে জড়িত থাকার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং ২৫/২০২১। দায়েরকৃত মামলার ৪ আসামিকে থানা পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান, আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।