সিলেটে বিএমএ’র মহাসচিব ডাঃ দুলালের মানবিক কার্যক্রম অব্যাহত

সিলেটে বিএমএ’র মহাসচিব ডাঃ দুলালের মানবিক কার্যক্রম অব্যাহত
ছবি: সংগৃহীত

সিলেট প্রতিনিধি।। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের মহাসচিব ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল এর উদ্যোগে সিলেটের বন্যার্তদের মধ্যে মানবিক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। বন্যার শুরু থেকেই তিনি সিলেটে বিশেষ করে দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলার বন্যার্তদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান এবং চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ডাক্তার দুলালের এমন মানবিক কার্যক্রমে সিলেটের তিনটি উপজেলায় বন্যাদুর্গত মানুষের মধ্যে আশার আলো ফিরে এসেছে। বিশেষ করে বিশেষজ্ঞ টিম নিয়ে বানবাসি মানুষের চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ কার্যক্রম সর্বমহলে প্রশংসিত হচ্ছে।  

এ ব্যাপারে আলাপকালে ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়। শেখ হাসিনা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বেঁচে থাকবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন আমরা যেনো বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াই। তার এই নির্দেশনা মেনেই আমি দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জের বন্যার্ত মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। এ খাদ্যসামগ্রী দান নয়, এগুলো মানুষের অধিকার। আমরা শুধুমাত্র কাছে পৌঁছে দিতে এসেছি। এখানে আমাদের কোনো কৃতিত্ব নেই। এরসব কৃতিত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। আমি ও আমার পরিবার এলাকার মানুষের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। এ এলাকার মানুষ আমার ভাই ইনামুল হক চৌধুরী বীরপ্রতীককে দুইদুইবার ভোট দিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করেছিলেন। 
ডা. দুলাল বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি দলীয় সভানেত্রীর কাছে সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন চাইবো। যদি আমি মনোনয়ন নাও পাই তাহলেও আমার কোনো অভিযোগ থাকবে না। আমি মনোনয়ন পেলেও জনগণের পাশে আসবো, না পেলেও আসবো। তিনি নেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া কামনা করেন। 
ডা. দুলাল নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে বালাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইলাশপুর গ্রামে স্থানীয় বন্যার্ত মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন এবং ১৪ জুলাই বৃহস্পতিবার দক্ষিণ সুরমা জালালপুর হাইস্কুলে স্থানীয় জনসাধারণের মধ্যে বিনামূল্যে ঔষধ সহ চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।