সৈয়দপুরে এক দম্পতির বিরুদ্ধে নবজাতক বিক্রির অভিযোগ

সৈয়দপুরে এক দম্পতির বিরুদ্ধে নবজাতক বিক্রির অভিযোগ
ছবি সংগৃহীত

স্টাফ রিপোর্টার।। সৈয়দপুর দুর সম্পর্কিত ফুপাতো বোনের কাছে ২০ হাজার টাকায় নব ভুমিষ্ট ছেলে সন্তানকে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। পুলিশ সেই নবজাতককে উদ্ধার করে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়।

মঙ্গলবর(৩আগস্ট) সকালে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, জোসনা বেগম (৩১), স্বামী- মো. নাদিম নামে একজন সকালে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন । পরে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন একই এলাকার জনৈক এক মহিলার কাছে।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা শহরের কুন্দল এলাকার রফিক মিয়া বলেন, হাসপাতালে মূল গেটে নবজাতকের বাবার সঙ্গে এক মহিলার ক্রেতার চুক্তিপত্র সম্পাদন হতে দেখি। চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর শেষে মহিলাটি নবজাতকের বাবার হাতে এক ব্যান্ডেল টাকা তুলে দেন। পরে এ ঘটনাটি চাউর হয়ে পড়লে সৈয়দপুর সদর পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা আব্দুর রহিম দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে ক্রেতা লিমা আকতারের কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। লিমা আকতার সৈয়দপুর শহরের নিচু কলোনি মহল্লার খায়রুল ইসলামের স্ত্রী।

নবজাতকের মা জোসনা বেগম জানান, জামিলা খাতুন আমার দূর সম্পর্কীয় ফুপাতো বোন। তাঁর কোনো ছেলে সন্তান না থাকায় তাকে স্বেচ্ছায় দিয়েছি। তবে আমার চিকিৎসার খরচ বাবদ তিনি আমাদের ২০ হাজার টাকা দিয়েছেন।

খবরটি মূহুর্তে শহরজুড়ে প্রচার হলে আলোড়ন সৃষ্টি হয়।