সৈয়দপুরে চলন্ত বাসের চাকা খুলে যাওয়ার পরও রক্ষা পেল ৩০ যাত্রী

সৈয়দপুরে চলন্ত বাসের চাকা খুলে যাওয়ার পরও রক্ষা পেল ৩০ যাত্রী
ছবি সংগৃহীত

স্টাফ রিপোর্টার। নীলফামারীর সৈয়দপুরে চলন্ত বাসের পেছনের চাকা খুলে যাওয়ার পরও অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেল ৩০ যাত্রী।

রবিবার(১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সৈয়দপুর-রংপুর মহা সড়কের কামারপুকুর মৎস্য গবেষণা কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনাটি ঘটে। 

স্থানীয়রা জানান, আন্তজেলা পরিবহন ভাই ভাই বাস সার্ভিস নীলফামারী রামগঞ্জ থেকে সৈয়দপুর হয়ে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে রংপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। বাসটি সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে রংপুরের উদ্দেশে রওনা দেয়। কামারপুকুর মৎস্য গবেষণা কেন্দ্রের সামনে এলে পেছনের চারটি চাকা খুলে যায়। বাসচালক বাসটি নিয়ন্ত্রণে আনায় এতে কেউ হতাহত হননি। 

বাস চালক রফিকুল ইসলাম জানান, বাসটি যখন কামারপুকুর মৎস্য গবেষণা কেন্দ্রের সামনে তখন কিছু বুঝে ওঠার আগেই বাসটি বন্ধ হয়ে যায়। তখন দেখি বাসটির পেছনের অংশ রাস্তায় বসে গেছে আর চাকাগুলো রাস্তায় পড়ে আছে। পরে যাত্রীদের নামিয়ে নেওয়া হয়। তাঁরা সবাই নিরাপদ রয়েছে। 

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খাঁন বলেন, ঘটনাটি জানার পর হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি আমরাও সেখানে গিয়েছি। যাত্রীদের কোন ক্ষতি হয়নি।