সৈয়দপুরে জমিজমা নিয়ে বিরোধে আহত ২ নারী।

সৈয়দপুরে জমিজমা নিয়ে বিরোধে আহত ২ নারী।

স্টাফ রিপোর্টার। ৩ মে,২০২১।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে মারধর ও বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটে বুধবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষণপুর পাঠানপাড়া এলাকায়। তাদের পূর্বে মামলা চলমান রয়েছে বলে জানা যায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ওই এলাকার আলমগীর হোসেন বাড়ি নির্মাণের জন্য ইটের খোয়া স্তুপ করে রাখেন রশিদুল ইসলামের জায়গায় । ঘটনার দিন আলমগীর ওই খোয়া আনার জন্য ভ্যানচালক সাজুকে পাঠান। কিন্তু ওই জমি নিয়ে বিরোধ থাকায় রশিদুলের স্ত্রী রিনা বেগম সাজুকে খোয়া তুলতে বাঁধা দেয়। এতে সাজু, ও রিনা বেগমের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। ভ্যানচালক সাজু , শামিম, ও রেজা রিনা ও লাভলীকে মারধর করে। লাভলীর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানায় যে আমি ঘটনা সময় এগিয়ে যাই, যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেখি যে আমার ভাতিজী রিনাকে ভ্যানচালক সাজু, শামিম ও রেজা, মারধর করে আমি বাচাতে গেলে আমাকে এলোপাথারী ও শরীরে বিভিন্ন স্থানে মারধর  কিল-ঘুষি করে এবং আমার জামা কাপড়টেনে হিচড়ে নেয় ও জামা ছিড়ে দেয় বর্তমান আমি ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় আছি।সাজুর সঙ্গে কথা বললে জানা যায়,ওই সময় কে বা কারা বাড়িতে ইটপাটকেল ছুঁড়ে মারে । এতে বৈদ্যুতিক শটসার্কিটের আগুনে পুড়ে যায় বসতবাড়ি। খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।  এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা খোরশেদ আলমের সঙ্গে কথা বললে তিনি  জানান, বৈদ্যুতিক শটর্সাকিটে আগুন লেগে পুরে যায়।

 ঘটনার সময় বাড়িতে পুরুষরা না থাকায় স্থানীয়রা রিনা ও লাভলীকে আহত অবস্থায় সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করায়। আহতরা বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন।

 ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রণোবেশ চন্দ্র বাগচি ওরফে দুলাল বাবু ও স্থানীয় মেম্বার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং উভয়পক্ষকে নিয়ে শালিসী বৈঠক করবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন।