সৈয়দপুরে ৫ম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে পরিচালক গ্রেফতার

সৈয়দপুরে ৫ম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে পরিচালক গ্রেফতার

জাহিদুল হাসান জাহিদ,স্টাফ রিপোর্টার।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে মাদ্রাসার এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসা পরিচালক মোস্তফা জামান কাওছার (৩৮) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার(১৪ আগষ্ট) সন্ধায় সৈয়দপুর থানা পুলিশ মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

মোস্তফা জামান উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের শ্বাসকান্দ মাঝাপাড়া এলাকার মৃত আতাহার আলীর ছেলে। সে রেসিডেন্সিয়াল ক্যাডেট মাদরাসার পরিচালক ।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ছাত্রী ও তার পাঁচ সহপাঠী এক শিক্ষিকার সাথে মাদ্রাসার তয় তলায় আবাসিক রুমে থেকে পড়ালেখা করেন। একই তলায় মাদ্রাসার অফিসের পাশে আবাসিক রুমে মোস্তফা জামান তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন। ওই শিক্ষিকা ও তার এক সহপাঠী বাড়িতে চলে যাওয়ায় শনিবার রাতে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী ও তার তিন সহপাঠী অফিসরুমে ঘুমানোর প্রস্তুতি নেন। কাঁথা আনার জন্য ওই আবাসিক রুমে গেলে মোস্তফা জামান রুমে প্রবেশ করে মেয়েটিকে জোরপূর্বক জড়িয়ে ধরে তার স্পর্শকাতর জায়গা হাত দেন। তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। পরের দিন রোববার বিকেলে সুযোগ পেয়ে ঘটনাটি মেয়েটি তার মাকে জানান।

এরপর মেয়েটির মা তার মেয়েকে নিতে  মাদ্রাসায় যান। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে মাদ্রাসার আশেপাশের মানুষ পরিচালক মোস্তফা জামান কাওছারকে আটক করে। খবর পেয়ে পুলিশ মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।
সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে মেয়েটির মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। ভুক্তভোগীকে সাপোর্ট সেন্টারে নেওয়া হয়েছে।