হেফাজত নেতা মামুনুল সাত দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মামুনুল সাত দিনের রিমান্ডে
ছবিঃ সংগৃহীত

মোহাম্মদ হাসান। স্টাফ রিপোর্টার।। ১৯ এপ্রিল, সোমবার।। হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হকের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

আজ ১৯ এপ্রিল সোমবার ঢাকার সিএমএম আদালতে আনা হলে পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত মামুনুল হকের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গতকাল ১৮ এপ্রিল রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার করা হয় হেফাজত নেতা মামুনুল হককে, যিনি সম্প্রতি এক নারীসঙ্গীসহ নারায়ণগঞ্জের একটি রিসোর্টে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের হাতে আটক হওয়ার পর আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসেন।

এর আগে গত ২৬-২৮ মার্চ মোদীবিরোধী আন্দোলনের জের ধরে রাজধানী ঢাকা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ব্যপক তান্ডব চালায় হেফাজতের নেতাকর্মীরা। পুলিশ বলছে, বেপরোয়া এই তান্ডবের নেপথ্যে হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের উস্কানি ছিল, যার মধ্যে মামুনুল হক ছিলেন অন্যতম। যদিও এসব ঘটনায় একাধিক মামলা দায়ের করা হলেও মামলায় হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের কারও  নাম ছিল না।

গত ৩ এপ্রিল রিসোর্টকাণ্ডের পর হেফাজতের বেপরোয়া উত্থান ঠেকাতে কঠোর নির্দেশনা দেয় সরকার। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারাও নড়েচড়ে বসে,  নতুন করে দায়ের করা মামলায় আসামী করা হয় হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের। শুরু হয় গ্রেফতার অভিযান। একই সঙ্গে হেফাজতের শীর্ষ নেতা মামুনুল হকের একাধিক নারীর সঙ্গে ‘অনৈতিক সম্পর্ক’  থাকার বিষয়টিও সামনে চলে আসে।

গত ১১ এপ্রিল থেকে হেফাজতের মধ্যমসারির ৮ জন নেতাকে গ্রেফতারের পর গতকাল গ্রেফতার করা হয় মামুনুল হককে। গ্রেফতারের পর তাকে প্রথমে পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনারের কার্যালয় এবং পরে তেজগাঁও থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে। রাতে তাকে হস্তান্তর করা হয় গোয়েন্দা পুলিশের কাছে।