হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি করার সময় এক নারী আটক

হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি করার সময় এক নারী আটক
এস এম আওলাদ হোসেন, সিনিয়র রিপোর্টার।। ০৫ সেপ্টেম্বর, রবিবার।। লক্ষ্মীপুর শহরের একটি বেসরকারী হাসপাতাল থেকে এক নবজাতকে চুরি করে নেয়ার সময় এক নারীকে হাতে নাতে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে স্থানীয়রা। 
রোববার(৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের নোভা ট্রমা সেন্টার হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত নারীর নাম মিতু আক্তার(২৮)। তার বাড়ি সদর উপজেলার বশিকপুর এলাকায়।
পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার দালাল বাজার এলাকার সাবিনা আক্তার নোভা ট্রমা সেন্টারে সিজার অপারেশনের মাধ্যমে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়। রোববার দুপুরে নার্স পরিচয়ে মিতু আক্তার হাসপাতালে যায়। 

পরে ওই নবজাতককে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে কৌশলে চুরি করে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তা থেকে তাকে-হাতে নাতে আটক করে স্থানীয়রা। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নারীকে আটক করে।
তবে নবজাতকের বাবা সুমন হোসেন ও মা সাবিনা আক্তার জানান, দুপুরে নার্স পরিচয়ে নবজাতককে হাসপাতালের নিচ তলায় ডাক্তার দেখানোর কথা বলে নিয়ে যায়। 
পরে ডাক্তারকে না দেখিয়ে রিকশায় করে নবজাতককে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় উপস্থিত লোকজন টের পেয়ে ওই নারীকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার চেয়েছেন তারা।
হাসপাতালের কতর্ব্যরত চিকিৎসক জয়নাল আবেদিন জানান, নবজাতকে চুরি করার সময় নারীকে হাতে-নাতে আটক করা হয়েছে। পরিকল্পিতভাবে এ নবজাতককে চুরির চেষ্টায় চালায়। 
এ নারীর সাথে আরো কেউ জড়িত থাকতে পারে। তারা নবজাতক চুরির একটি সিন্ডিকেট বলে ধারনা করছি। তার কাছ থেকে নার্সের এ্যাপ্রন জব্দ করা হয়েছে।
পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান বলেন, চুরি করার সময় নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নারীকে আটক করা হয়েছে। 
মামলার প্রস্তুতি ও এ ঘটনার সাথে আরো কেউ জড়িত রয়েছে কিনা,সে বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।