হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখে পালিয়েছে স্বামী

হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখে পালিয়েছে স্বামী
ছবি: সংগৃহীত
এস এম আওলাদ হোসেন, সিনিয়র রিপোর্টার।।
লক্ষ্মীপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে পারভিন বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে৷ বুধবার (১৩ এপ্রিল) সকালে তার মরদেহ সদর হাসপাতালের বারান্দায় ফেলে রেখে রিকশাচালক স্বামী জাকির হোসেন পালিয়ে যায়। দুপুরে সদর উপজেলার শাকচর ইউনিয়নের উত্তর টুমচর গ্রামের বাড়িতে গিয়েও জাকিরসহ তার পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি।
নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, জাকির ও পারভিনের সংসারে দুই সন্তান রয়েছে। কয়েকদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলে আসছে। বুধবার সকালেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। আহত অবস্থায় স্ত্রীকে নিয়ে স্বামী হাসপাতালে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে (পারভিন) মৃত ঘোষণা করে। একপর্যায়ে মরদেহ হাসপাতালের বারান্দায় রেখেই পালিয়ে যায় স্বামী।
নিহত পারভিনের বোন পান্না বেগম ও মা খুরশিদা বেগম জানায়, জাকিরসহ তার পরিবারের লোকজন পারভিনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। পরে মরদেহ হাসপাতালে রেখে তারা সপরিবারে পালিয়ে গেছে। 
লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইয়াকুব আলী বলেন, হাসপাতালে গিয়ে মরদেহের সুরতহাল করা হয়েছে। শশুর বাড়ির কাউকে পাওয়া যায়নি। নিহতের আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেছি। পারভিনের পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।