১০ম রমাজানে অসহায় মধ্যভিত্তের খাদ্য সহায়তায় স্বপ্নপূরণের সেঞ্চুরি

১০ম রমাজানে অসহায় মধ্যভিত্তের খাদ্য সহায়তায় স্বপ্নপূরণের সেঞ্চুরি
ছবিঃ সংগৃহীত

 ঝালকাঠি প্রতিনিধি।। ২৪ এপ্রিল, শনিবার।।  ঝালকাঠিতে করোনা মোকাবিলা য় সম্মুখ সাড়ির যোদ্বা হিসাবে কাজ করে যাচ্ছে শহরের একটি মানবিক সংগঠন স্বপ্নপূরণ সমাজকল্যাণ সংস্থা সসস ২০২০সালের মার্চ মাস থেকেই তারা কাজ করে যাচ্ছেন নিরলস ভাবে।

৫টাকার কেনাকাটা শিরোনামে চালিয়ে যাচ্ছে মধ্যভিত্তদের জন্য মানবিক বাজার।

৫ টাকার বিনিময়ে  পাওয়া যাচ্ছে ইফতার সামগ্রী
ঝালকাঠিতে করোনা পরিস্থিতিতে পাঁচ টাকার কুপনে ইফতার ও খাদ্য  সামগ্রী পৌছে দিচ্ছে দুস্থ পরিবারের মধ্যে। ঝালকাঠি জেলার কৃষ্ণকাঠিতে ব্যতিক্রমী এ ব্যবস্থার আয়োজন করেছে অত্র সংগঠন টি শুক্রবার সকাল ১০টা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় এই মানবিক বাজারের।
প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আরিফুল ইসলাম।
এছাড়াও যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা  মু.আল আমিন বাকলাই সহ সংগঠন এর সদস্য রা।

 ১০০ পরিবার কে যুক্ত করেছিল, আজকে সকাল ১১টায় 

মাত্র পাঁচ টাকার একটি কুপন কেনার মাধ্যমে ইফতার সহ প্রায় ১২টি পণ্য সামগ্রী নিতে পারবেন নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো।

 করোনা মহামারিতে যারা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। না পারছেন কারো কাছে চাইতে, না পারছেন নিত্যদিনের খাবার যোগাড় করতে তাদের জন্য sss এ উদ্যোগ। তারা কোনো দান ও অনুগ্রহ নয় বরং নিজেদের টাকাতেই এ সামগ্রী কিনে নিতে পারছেন।

স্বপ্নপূরণ সামজকল্যাণ সংস্থার সভাপতি রিয়াজ খান জানান, পাঁচ টাকার টোকেন নিলে প্রত্যেককে এক কেজি তেল, দুই কেজি পেঁয়াজ, এক কেজি মশুরের ডাল, দুই কেজি ছোলা, এক কেজি চিনি, আধা কেজি মুড়ি, এক কেজি খেজুর, তিন কেজি আলু, এক কেজি চিড়া, পাঁচ কেজি চাল ও একটি মাস্ক দিয়ে থাকি।

তিনি আরো বলেন, প্রথম রমজানে ২০ জন  ইমাম-মুয়াজ্জিনকে দিয়ে পাঁচ টাকার কুপনে ইফতার বিতরণ শুরু করেছি। ইতোমধ্যে ১০০ পরিবাকে  কুপনের মাধ্যমে এ সহায়তা দেয়া হয়েছে। প্রত্যেক ক্রেতা হোম ডেলিভারি বা কুপন জমা দিয়ে তাদের ক্রয়কৃত পণ্য নিচ্ছেন।

রিয়াজ খান জানান, আগামী শুক্রবার ১০০ জনকে ইফতার ও খাদ্য  সামগ্রী দেয়া সম্পন্ন হবে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসব কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
এছাড়াও সংস্থার পক্ষ থেকে শহরের প্রায় ৯৩টি মসজিদের ওজুখানায় প্রতি মাসে ১বার সাবান ও জন সচেতনতায় লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ ধারাবাহিক ভাবে চালিয়ে যাচ্ছে সংগঠন এর কর্মিরা। 
তবে সংগঠনের সদস্যদের আক্ষেপ আজ পর্জন্ত সরকারি কোন সহায়তা তারা পান নি।

উল্লেখ্য, গত বছরও করোনা মহামারিতে পাঁচ টাকার কেনাকাটা কর্মসূচি  সফলভাবে সম্পন্ন করায় প্রশংসিত হয়েছিল স্বপ্নপূরণ সমাজকল্যাণ সংস্থাsss পেয়েছে বিভিন্ন সম্মাননা।