বাগেরহাটের মহিষ প্রজনন খামারে নব নিযুক্ত কোম্পানির খাবার সরবরাহ শুরু

বাগেরহাটের মহিষ প্রজনন খামারে নব নিযুক্ত কোম্পানির খাবার সরবরাহ শুরু
ছবি- ম ম রবি ডাকুয়া

ম.ম.রবি ডাকুয়া বাগেরহাট, ০৩ নভেম্বর ২০২০।।

বাগেরহাটে দেশের এক মাত্র মহিষ প্রজনন ও উন্নয়ন খামারে ২০২০-২১ অর্থ বছরের জন্য নতুন করে নিযুক্ত কোম্পানির খাবার সরবরাহ শুরু হয়েছে। নবনিযুক্ত নতুন ঠিকাদার মেসার্স করিম ট্রেডার্স সোমবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে এই খাবার সরবরাহ শুরু করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ লুৎফর রহমান, মহিষ প্রজনন ও উন্নয়ন খামারের ব্যবস্থাপক ডাঃ মোঃ শরিফুল ইসলাম, ফকিরহাট উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ পুস্পেন শিকদার, এবং মেসার্স করিম ট্রেডার্সের স্বত্তাধীকারি ওমর আলী মুন্নাসহ খামারের কর্মকর্তা কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।


নব নিযুক্ত ঠিকাদার ঠিকাদার কোম্পানির মালিক ওমর আলী মুন্না বলেন, নতুন অর্থ বছরে অনলাইন দরপত্রের মাধ্যমে আমরা মহিষ প্রজনন খামারে খাদ্য সরবরাহের অনুমোদন পেয়েছি।এবং প্রথম দিনে আমরা ৪ হাজার ৮ কেজি খড় সরবারহ করেছি। আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত আমরা সম্পুর্ন চাহিদার এক লক্ষ ১৪ হাজার কেজি খড় সরবরাহ করব। খামারের চাহিদা অনুযায়ী আমরা আরও খাবার সরবরাহ করব।এবং এ মহিষ প্রজনন ক্ষেত্রের নিযুক্ত ঠিকাদার কোম্পানি হিসেবে যথা সময় চাহিদা মোতাবেক খাবার সরবরাহ করবো।


মহিষ প্রজনন ও উন্নয়ন খামারের ব্যবস্থাপক ডা. মোঃ শরিফুল ইসলাম বলেন, আমরা ল্যাব টেস্টের মাধ্যমে আমরা এই ঠিকাদারের প্রথম চালানের খড় গ্রহন করেছি। খাদ্যের মান ঠিক রয়েছে। আমাদের চাহিদা অনুযায়ী এর পরের গুলোও খাদ্যের মান ঠিক রেখে ঠিকাদারকে সরবরাহ করার জন্য বলেছি।
স্থানীয়রা জানান ইতি পূর্বে দেশের একমাত্র মহিষ প্রজনন খামারের খাদ্য নিয়ে নানা বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। অনেক অভিযোগও ছিল খাবার নিয়ে।