১০ বছর পর নীলফামারী প্রেসক্লাব কমিটি গঠন

১০ বছর পর নীলফামারী প্রেসক্লাব কমিটি গঠন

স্টাফ রিপোর্টার। দীর্ঘ ১০ বছর পর ৩১ মে নীলফামারী প্রেসক্লাবের সাধারণ সভায় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ শামসুল ইসলাম, প্রবীণ শিক্ষক আব্দুল মান্নান বিএসসি, বিশিষ্ট লেখক মোহাম্মদ আলী, বিশিষ্ট কবিতা ও ছড়াকার আব্দুল হক প্রধানকে উপদেষ্টা মনোনিত করে “মাই টিভির” জেলা প্রতিনিধি আজিজুল হক বুলুকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি দীপক আহমদকে সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক আমাদের অর্থনীতির জেলা প্রতিনিধি স্বপ্না আক্তারকে মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত করে ৩ বছর মেয়াদী পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী কমিটি ঘোষনা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে কাজী নজরুল ইসলাম হল (বিডি হল) সংলগ্ন নীলফামারী প্রেসক্লাবের হল রুমে নব গঠিত কমিটির সদস্যদের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নবগঠিত নীলফামারী প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও দৈনিক নীলকথার সম্পাদক কাজী মাহবুবুল হক দোদুল, দি ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের আবু মুসা মাহমুদুল হক, সহ-সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের জেলা প্রতিনিধি পারভেজ উজ্জল, দপ্তর সম্পাদক ও দৈনিক ভোরের ডাকের জেলা প্রতিনিধি ফরহাদ আলম নয়ন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও দৈনক আমার সংবাদের জেলা প্রতিনিধি আল-আমিন অর্থ সম্পাদক ও দৈনিক আজকের প্রত্যাশার জেলা প্রতিনিধি মোরশেদ আলী, প্রচার সম্পাদক ও আমাদের সময়ের জেলা প্রতিনিধি রেজাউল করিম রঞ্জুসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। সভায় প্রেসক্লাবের আয়-ব্যায় নিয়ে অস্বচ্ছতা, মামলা-মোকদ্দমা ও বিভিন্ন হাউজের মাধ্যমে প্রেসক্লাবের ঐক্য বিনষ্টকারীদের সম্পর্কে সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে সজাগ থাকার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে ২৪ মে অনুষ্ঠিত জেলা প্রেসক্লাবের দ্বিতীয় নির্বাচনে, সভাপতি পদে তাহমিন হক ববি, সেক্রেটারি পদে রতন সরকার নির্বাচিত হন এবং ২৬ মে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়, শপথ গ্রহণ করেন, তাহমিন হক ববি, রতন সরকার এবং সহসভাপতি ওয়াহেদুজ্জামান নান্না।
এরপর সেক্রেটারি রতন সরকার রংপুরের ব্যুরো প্রধান হিসেবে যোগদান করেন। তার সাথে প্রেসক্লাবের সকল কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়, এরপর প্রেসক্লাবের কার্যক্রম গতিশীল রাখতে গত ১৫ অক্টোবর ২০১২ সালে শামসুল ইসলাম কে সভাপতি এবং দীপক আহমেদ কে সেক্রেটারি করে কমিটি গঠিত হয়। সেই কমিটি জেলার বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করে আসছে। এবং জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মিটিংয়ে, প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি হিসেবে নেতৃত্ব দেন, শামসুল ইসলাম।