৭ বছর সাজা এড়াতে ১২ বছর পালিয়ে থেকে র‍্যাবের ফাঁদে গ্রেফতার আতোয়ার

৭ বছর সাজা এড়াতে ১২ বছর পালিয়ে থেকে র‍্যাবের ফাঁদে গ্রেফতার আতোয়ার
গ্রেফতার হওয়া আতোয়ার

মোহাম্মদ আরিফ হোসেন।। স্পেশাল করেসপনডেন্ট।। 
মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন বেতিলা-মিতরা এলাকা থেকে ১২ বছর যাবত পলাতক সাত বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী মোঃ আতোয়ার রহমান (৬০) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন বেতিলা-মিতরা থেকে আতোয়ার রহমান'কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার বিষয়ে র‍্যাব জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ আতোয়ার রহমান একটি প্রতিষ্ঠিত ব্যাংকের পিয়ন হিসেবে কর্মরত থাকা অবস্থায় গ্রাহকের সঞ্চয় আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংকের ম্যানেজার বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করেন । উক্ত মামলায় অর্থ আত্মাসাতের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত থাকার অপরাধে অভিযুক্ত মোঃ আতোয়ার রহমান’কে আদালত ০৭ বছরের সাজা প্রদানসহ ২৫০০০/- টাকা জরিমানা করেন। 

এরপর থেকে গ্রেফতার এড়াতে আতোয়ার আত্মগোপনে চলে যায় এবং আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় নিজের পরিচয় গোপন করার জন্য ক্রমাগতভাবে পেশা পরিবর্তন করতে থাকে। প্রথমদিকে সে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় রিক্সাচালক, রাজমিস্ত্রী ও পরবর্তীতে চায়ের দোকান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। এভাবে সে  দীর্ঘ ১২ বছর ধরে পলাতক ছিলো। 

গ্রেফতার হওয়া আতোয়ার রহমান ১৯৬২ সালে মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন মত্ত এলাকায় জন্মগ্রহণ করে। সে স্থানীয় স্কুলে অষ্টম শ্রেনী পর্যন্ত লেখা-পড়া করে। ব্যক্তিগত জীবনে আসামী বিবাহিত এবং বর্তমানে তার পরিবারের দুইটি কন্যা সন্তান ও একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। 

উল্লেখ্য আতোয়ার এর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ এর অভিযোগের মামলায় আদালতের রায়ে ২৩ মার্চ ২০১০ তারিখে ৭ বছর জেল এবং ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে।