সীমান্তে উত্তেজনার মাঝেও চীনের ব্যাংক থেকে মোটা টাকা ঋণ নিয়েছে ভারত!

সীমান্তে উত্তেজনার মাঝেও চীনের ব্যাংক থেকে মোটা টাকা ঋণ নিয়েছে ভারত!

তা হলে কি যুদ্ধ-যুদ্ধ ভাবটা স্রেফ লোকদেখানো! প্রকৃত নিয়ন্ত্রপরেখায় এত উত্তেজনার মাঝেও চিনা ব্যাঙ্ক থেকে মোটা টাকা ঋণ নিয়েছে ভারত। আর সেই কথা সংসদে জানালেন খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

একের পর এক চিনা অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে চিনের সঙ্গে এখনও কূটনৈতিক ও আর্থিক সম্পর্ক ছিন্ন করেনি ভারত। কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জানিয়েছেন, চিনা ব্যাঙ্ক থেকে নহাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে ভারত।

পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্য চিনে অবস্থিত এশিয়ান ইনফ্রস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাঙ্কের সঙ্গে ঋণ চুক্তি সই করেছে ভারত। গত ৮ মে তিন হাজার ৬৭৬ কোটি টাকার প্রথম চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছিল। সেই সময় কিন্তু সীমান্তে ভারত-চিন উত্তেজনা তুঙ্গে ছিল।

পাঁচ হাজার ৫১৪ কোটি টাকার দ্বিতীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ১৯ জুন। সেই সময়ও লাদাখে ভারত-চিন সেনার মধ্যে প্রবল উত্তেজনা ছিল। ১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনারা ভারতীয় জওয়ানদের হত্যা করেছিল।

এই তথ্য সামনে আসার পর বিরোধীরা আর ছেড়ে কথা বলছে না। বলা হচ্ছে, যুদ্ধের জিগির তুলে কেন্দ্রীয় সরকার লোককে বিব্রত করে রাখছে। এদিকে চিনের সঙ্গে সব সম্পর্কই বজায় রাখছে মোদীর সরকার। সূত্র জি নিউজ ২৪.