অংকনের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে জবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

এইরকম প্রচন্ড মেধাবী একজন শিক্ষার্থী হুট করে সবার মাঝ থেকে হারিয়ে যেতে পারেনা

অংকনের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে জবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন
ছবি: সংগৃহীত

জবি প্রতিনিধি।।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইংরেজি বিভাগের ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী অংকন বিশ্বাসের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে জবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেছে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

(বুধবার) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অংকনের ছবি সামনে রেখে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন প্রাক্কালে এ দাবি জানান তারা। এসময় ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থীরাসহ অংকনের সহপাঠীরাও উপস্থিত ছিলেন। 


মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচিতে অংকনের সহপাঠী আবু রায়হান বলেন, এইরকম প্রচন্ড মেধাবী একজন শিক্ষার্থী হুট করে সবার মাঝ থেকে হারিয়ে যেতে পারেনা। আমরা চাই অংকনের মৃত্যুরহস্যের আইনি তদন্ত হোক। আমরা কারও বিরুদ্ধে অন্যায় হোক সেটা চাই না, অংকনের ক্ষেত্রে তো একেবারেই না। আমরা এটাই চাই আমাদের সবার সামনে এত সম্ভাবনাময় একটা মানুষের মৃত্যু রহস্যের জালে চাপা না পড়ুক। 

এ সময় তিনি আরও বলেন, এই দাবিগুলোর ভিত্তিতে আমরা ইংরেজি বিভাগের পরবর্তী কর্মসূচি হিসেবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন করবো। যে করেই হোক এই বিষয়ে তদন্ত করে সত্য উদঘাটন করতেই হবে। আমরা আশা করবো প্রশাসনসহ বিশ্ববিদ্যালয় এ বিষয়টি নিয়ে এগিয়ে আসবেন। 

অংকনের আরেক সহপাঠী নাহিদ হাসান রবিন বলেন, অংকনকে আর ফিরে পাবো না কখনোই। তবে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য অবশ্যই সুষ্ঠু তদন্ত হতেই হবে। নইলে ভবিষ্যতে আমরা আরও এমন অনেক অংকনকে হারাবো৷

উল্লেখ্য, ১৪ দিন হাসপাতালে থাকার পর গত ৮ মে মৃত্যুবরণ করেন অংকন। মৃত্যুর পর জানা যায় ধর্মান্তরিত করে এই শিক্ষার্থীকে বিয়ে করেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ। তার বাসায় অংকন অজ্ঞান হয়ে পড়েন পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় বিষক্রিয়ায় এই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।