অক্সিজেনের অভাবে ভারতের বড় বড় হাসপাতাল গুলো রোগী ভর্তি নিচ্ছে না

অক্সিজেনের অভাবে ভারতের বড় বড় হাসপাতাল গুলো রোগী ভর্তি নিচ্ছে না
ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক।। ২৬ এপ্রিল, সোমবার।। শুক্রবার সকালে ভারতের রাজধানী দিল্লির পঁচিশটি পরিবার এই খবর শুনে জেগেছিল যে তারা যে প্রিয়জনকে পছন্দ করেছেন তারা শহরের স্যার গঙ্গা রাম হাসপাতালে মারা গিয়েছিলেন, 
কারণ করোন ভাইরাস রোগীরা পর্যাপ্ত অক্সিজেন পেতে পারেনি বলে জানা গেছে। হাসপাতালের মেডিক্যাল ডিরেক্টর বলেছেন যে মারাত্মক ঘাটতিজনিত অসুস্থ রোগীদের মধ্যে ২৫ জন অক্সিজেনের প্রবাহকে ধীর করে দিয়েছিল, যাদের উচ্চ চাপ, স্থিতিশীল সরবরাহের প্রয়োজন ছিল। ট্র্যাজেডিটি এক সপ্তাহের শেষে এলো যেখানে দিল্লির বেশ কয়েকটি বড় হাসপাতাল বারবার অক্সিজেনের স্রোতের কাছাকাছি এসেছিল, যা ভাইরাসজনিত রোগীদের যাদের শ্বাস প্রশ্বাসের জন্য সহায়তা
প্রয়োজন তাদের বেঁচে থাকতে সহায়তা করতে পারে। মঙ্গলবার, এটি মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে মরিয়া জনসাধারণের আবেদন এবং ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে গভীর রাতে রিফিলের ব্যবস্থা করার জন্য হাইকোর্টের হস্তক্ষেপ নিয়েছিল। শুক্রবার সকালে একটি অক্সিজেন ট্যাঙ্কার স্যার গঙ্গা রাম হাসপাতালে এসে পৌঁছেছিল, এই ভয়াবহ সতর্কতার পরে যে আরও 60০ জন রোগী মৃত্যুর পথে রয়েছে। তবে ভারতের ক্রমবর্ধমান কেস তার স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাটিকে দেশের ধনীতম শহরগুলি থেকে প্রত্যন্ত কোণে ঠেলে দিচ্ছে।

হাসপাতালে স্বাস্থ্য সেবা হুমকির মুখে পতিত হয়েছে। সেবা দিতে গিয়ে অক্সিজেনের অভানে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে অনেক হাসপাতাল

এ অবস্থায় দেশটির ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা গ্রস্থ সারা বিশ্ব।