গাইবান্ধায় জমিতে ধান রোপন করা হলো না কৃষক আঃ রহমানের

গাইবান্ধায় জমিতে ধান রোপন করা হলো না কৃষক আঃ রহমানের
ছবিঃ আবু তাহের

আবু তাহের, গাইবান্ধা।। ১৭ ফেব্রুয়ারি।। গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে কৃষি জমিতে পানি নিতে বাঁধা দেয়ায় ইরি ধান রোপন করতে পারছেন না আঃ রহমান নামের এক কৃষক।

ঘটনাটি ঘটেছে,পলাশবাড়ী পৌর এলাকার হিজলগাড়ী গ্রামে।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,ওই গ্রামের মৃত বিরাজ উদ্দিনের ছেলে কৃষক আঃ রহমান একই গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে আবু হোসেনের নিকট থেকে ৫ বছর হলো ৪২ শতাংশ জমি বন্ধক নিয়ে চাষাবাদ করে আসছিলো। 

কিছুদিন পূর্বে জমির মালিক আবু হোসেনের সাথে পার্শ্ববর্তী জমির মালিক মৃত বাবু মন্ডলের ছেলে আশাদুলের সাথে তার মনোমালিন্য হয়। 

এরই জের ধরে আশাদুল তার জমির উপর দিয়ে আঃ রহমানের বন্ধক নেয়া জমিতে পানি যেতে দেবে না সেচ মালিক ফজলু মিয়াকে নিধেষ করলে তিনি জমিতে পানি দেয়া থেকে বিরত থাকেন। যার কারনে উক্ত জমিতে ইরি ধানের চাষ করতে পারেনি কৃষক আঃ রহমান।

জমির মালিক আবু হোসেন জানায়, আশাদুল কোন কারন ছাড়াই আঃ রহমানের বন্ধক নেয়া জমিতে পানি প্রদানে সেচ মালিক কে নিষেধ করেছে।

সেচ মালিক ফজলু এ বিষয়ে কারও সাথে কথা বলতে চান না বলে জানায়।

এ বিষয়ে আশাদুল জানায়,আমি আমার জমির উপর দিয়ে আঃ রহমানের জমিতে পানি যেতে দিব না।

কৃষক আঃ রহমান কান্না জড়িত কন্ঠে জানান,উক্ত জমিতে চাষাবাদ করতে না পারলে পরিবার নিয়ে আমাকে না খেয়ে থাকতে হবে। তাই তিনি সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।