জুতা কিনতে গিয়ে  ২৩ লাখ টাকা খোয়ালেন রাবি শিক্ষক 

জুতা কিনতে গিয়ে  ২৩ লাখ টাকা খোয়ালেন রাবি শিক্ষক 

আজকালবাংলা, রাজশাহী প্রতিনিধি।। জুতা পছন্দ করতে গিয়ে ২৩ লাখ টাকা খোয়ালেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষক। জুতার দোকান থেকে তার টাকার ব্যাগ ছিনতাই হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার (১০ মে) বিকেলে রাজশাহী নগরের বাটার মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করলেও টাকা উদ্ধার করতে পারেনি।

ভুক্তভোগী শিক্ষকের নাম মজিবর রহমান। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক। এ ঘটনায় তিনি ওই দিনই নগরের বোয়ালিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নিজের স্থায়ী আমানতের ২৩ লাখ টাকা তুলে ব্যাগে নিয়ে জুতার দোকানে ঢুকেছিলেন ওই শিক্ষক। পাশে ব্যাগ রেখে তিনি জুতা পছন্দ করছিলেন। এমন সময় এক ছিনতাইকারী ওই ব্যাগ নিয়ে দৌড় দেয়। জুতার দোকানি জুতা চোর ভেবে ধাওয়া দিয়েছিলেন। কিন্তু তাকে ধরতে পারেননি।

মজিবর রহমান বলেন, তিনি ও তার স্ত্রী জুতা পছন্দ করছিলেন। জুতার দিকেই মনোযোগ দিয়েছিলেন তারা। ব্যাগ নিয়ে দৌড় দেওয়ার সময় দরজায় শব্দ হয়।

তখন পাশের দোকান থেকে একজন দোকানি চিৎকার দিয়ে বলেন, চুরি করে পালাল। ওই দোকানি তাকে ধাওয়া দিয়েও ধরতে পারেনি। তিনি পরে খেয়াল করেন, তার টাকার ব্যাগটি নেই। তখনই বুঝতে পারেন, যে লোকটি পালিয়েছে, সে তার টাকার ব্যাগ নিয়ে গেছে।

বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, ওই শিক্ষক নগরের লক্ষ্মীপুর এলাকার জিপিও থেকে স্থায়ী আমানতের টাকা তোলেন। এ সময় সঙ্গে তার স্ত্রীও ছিলেন। তিনি টাকা নিয়ে একটি অটোরিকশায় নগরের বাটার মোড় এলাকায় আসেন। একটি জুতার দোকানে ব্যাগটি রেখে জুতা পছন্দ করছিলেন তিনি। এ সময় ছিনতাইকারী তাঁর পাশ থেকে ব্যাগটি নিয়ে দৌড় দেয়।

তিনি আরও বলেন, সিসি ক্যামেরায় দেখা গেছে, টাকা তোলার সময় থেকেই তাদের অনুসরণ করছিলেন ওই ছিনতাইকারী। একই অটোরিকশায় তাদের সঙ্গে বাটার মোড়ে এসে নামেন তিনি। তার মুখে মাস্ক ও মাথায় ক্যাপ পরা ছিল। ফুটেজ দেখে একজনকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।