যে কারনে পঙ্কজ দেবনাথকে আওয়ামিলীগ থেকে অব্যহতি

যে কারনে পঙ্কজ দেবনাথকে আওয়ামিলীগ থেকে অব্যহতি
পঙ্কজ দেবনাথ/ ছবি- সংগৃহীত

বরিশাল প্রতিনিধি।। আওয়ামী লীগ দলীয় সকল কার্যক্রম থেকে অব্যহতি প্রদান করা হয় বরিশাল -৪ আসনের সাংসদ পঙ্কজ দেবনাথকে। দলের শৃঙ্খলা ভংগের কারণ হিসেবে দল থেকে অব্যহতির কথা উল্লেখ করা হয়। ১১ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় আওয়ামিলীগ এর দপ্তর সম্পাদক বিল্পব বড়ুয়া সাক্ষরিত এক আদেশে এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরুর পর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ খোয়াতে হয় তাকে। এবার দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য পঙ্কজকে আওয়ামী লীগের সব পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

সোমবার দুপুরে চিঠিটি বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুসের কাছে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

চিঠিতে বলা হয়, ‘সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী অর্পিত ক্ষমতাবলে প্রাতিষ্ঠানিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আপনাকে আওয়ামী লীগের বরিশাল জেলা শাখার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য পদসহ অন্যান্য পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদ। উপরিউক্ত বিষয়ে আপনার লিখিত জবাব আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কেন্দ্রীয় দফতর বিভাগে জমা দেওয়ার জন্য সাংগঠনিক নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।’

পরে এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে পঙ্কজ দেবনাথ বলেন, ‘আমাকে দল থেকে অব্যাহতি দিয়েছে। এই চিঠি আমিও পেয়েছি কিন্তু কেনো দিয়েছে তা আমি জানি না। জানার চেষ্টা করছি। আমাকে বহিষ্কার করা হয়নি অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।’

অব্যহতির বিষয়টি নিশ্চিত করে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস বলেন, ‘গত চার বছরে মেহেন্দীগঞ্জে দলকে বিভক্ত করে নিজের বলয় সৃষ্টি করে পঙ্কজ দেবনাথ নিজের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে দলীয় নেতা-কর্মীদের হত্যা, নির্যাতন, পঙ্গু করে দেয়া, মিথ্যা মামলায় হয়রানি এবং স্থানীয় নেতাদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের অপতৎপরতা চালিয়েছেন। এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

 আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা বলছেন, নিজ এলাকায় গত চার বছরে দলকে বিভক্ত করে নিজের বলয় সৃষ্টি করেছেন পঙ্কজ দেবনাথ। ক্ষমতার দ্বন্দ্বে দলীয় নেতা-কর্মীদের হত্যা, নির্যাতন, পঙ্গু করে দেওয়া, মিথ্যা মামলায় হয়রানিও করার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। এসব অভিযোগ আমলে নিয়ে দল তাকে অব্যাহতি দিয়েছে।