স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবের পদত্যাগ দাবি করেছেন -মির্জা ফখরুল

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবের পদত্যাগ দাবি করেছেন -মির্জা ফখরুল
ছবিঃ সংগৃহীত

বিকাশ রায় চৌধুরী,ঠাকুরগাঁও।। ১৮ মে, মংগলবার।। বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রথম আলোর সাংবাদিক সত্যটাকে বের করে দায়িত্ব পালন করেছেন। জনগনের সামনে সত্যকে তুলে ধরেছেন। বিশেষ করে করোনার সময় সরকারের  যে দুর্নীতি এগুলোকে জনসম্মুখে নিয়ে এসেছেন। এই অপরাধে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে নেক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। আমরা কল্পনাও করতে পারিনি। রোজিনা ইসলামকে আটক করে নির্যাতনের পর পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। এবং মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে।

আমি এ সরকারকে ধিক্কার জানাই। তীব্র ভাষায় প্রতিবাদ করছি। অবিলম্বে সকল মামলা প্রত্যাহার করে তার মুক্তির দাবি করছি। এই সাথে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবের পদত্যাগ দাবি করছি। আমরা আগেই থেকেই বলছি এ দেশে মানুষের কোন অধিকার নেই। না আঝে সাধারণ মানুষ, না আছে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিকদেও অধিকার।
তাই নিজের প্রয়োজনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে দাড়ানোর পরামর্শ প্রদান করেন তিনি। তবে চাকুরি হারানোর ভয়ে তা করতে পারছেন না বলে মন্তব্যও করেন তিনি।
এছাড়া তিনি আরো বলেন, এই যদি রাস্ট্র ব্যবস্থা হয়। তাহলে রাস্টেও উপড় থেকে মানুষের আস্তা হারিয়ে যাবে। আজকে মিথ্যা মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে দীর্ঘকাল ধরে কারাভোগ করতে হচ্ছে। এখন তিনি এত অসুস্থ্য চিকিকিৎসকরা দেশের বাইওে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দিলেও সকার বাধা দিচ্ছেন।
অসংখ্য মামলা কর্মীদের বিরুদ্ধে। গনতন্ত্রেও কর্মীরা যারা তারা কিভাবে টিকে থাকবে। এটাকেই ফেসিবাদ বলে। ভয় ও ত্রাসের রাজত্ব সৃস্টি করা হয়েছে। এখনো সময় আছে সবাইকে সঞ্জার হওয়া উচিত। সমস্ত বিবেকবান ও পেশাজীবীর মানুষ ঐকবন্ধ হওয়া নিজেদের অধিকারকে রক্ষার্থে।
তিনি আজ মঙ্গলবার সকালে ঠাকুরগাঁও শহরের নিজ বাসভবনে বিএনপি তৃণমুল নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় কালে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন। এসময় জেলা বিএনপি’র শীর্ষ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।