সৈয়দপুরে অবৈধ ইট ভাটার ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা

সৈয়দপুরে অবৈধ ইট ভাটার ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা

সৈয়দপুরে অবৈধ ইট ভাটার ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা

জাহিদুল হাসান জাহিদ/স্টাফ রিপোটার।।নীলফামারী সৈয়দপুরে ৮ টি অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর রংপুর জেলা কার্যালয়। বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার খাতামধুপুর,কামারপুকুর,বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নও পৌর এলাকায় অবস্থিত ওই ইটভাটাগুলোতে অভিযোগ চালিয়ে উল্লিখিত পরিমাণ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। সেই সঙ্গে কয়েকটি অবৈধ ইটভাটায় এসকেভেটার দিয়ে অবকাঠামো ও ইট আংশিক ধ্বংস করা হয়েছে।সকালে উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়নের খিয়ারজুম্মা এলাকায় অবস্থিত এম,বি,সি, বিক্সস প্রথম অভিযান চালিয়ে লাইসেন্স না থাকায় ওই ইটভাটার মালিক সেলিনা বেগমের পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। সেই সঙ্গে সেখানে আংশিক ইট ধ্বংস করা হয়েছে। ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর ০৫ (পাঁচ) , ০৮(০৩) ধারায় মাটির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ ও হ্রাসকরণ আইনে ওই জরিমানা করা হয়। পরে এক এক অভিযান চালিয়ে উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের চিকলী নিজবাড়ি এলাকার ইউবিএল বিক্সস্রে মালিক মো. জোবায়দুল ইসলামের ছয় লাখ টাকা, এমএইচই বিক্সসের মালিক মো. আব্দুর রাজ্জাকের সাত লাখ টাকা,কামারপুকুরে মেসার্স সিএন বিক্সসের মালিক হাজী মো. নুর উদ্দিনের ছয় লাখ টাকা, একই এলাকার এমজেডএইচ বিক্সসের মালিক মো. জিকরুল হকের চার লাখ টাকা, শহরের নিয়ামতপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকার থ্রিস্টার বিক্সস্রে মালিক মো. মোজাহারুল ইসলামের সাত লাখ টাকা, নীলফামারী বাইপাস সড়কের ধলাগাছ এলাকার এবি বিক্সসের মালিক মো. আব্দুল মজিদের তিন লাখ টাকা এবং বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের চৌমুহনীবাজার এলাকার আর,এস,বি’ মালিক মো. ইকবাল হোসেন প্রামানিক ভোলা’র পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রোজিনা আক্তার ওই জরিমানা করেন। অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে এ অভিযানে পরিবেশ অধিদপ্তরের রংপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মেজবাবুল আলম, পরিদর্শক মো. মনোয়ারুল ইসলাম, রংপুর র‌্যাব-১৩, নীলফামারী সিপিসি-২ ক্যাম্পের কম্পানি কমান্ডার সিনিয়র এএসপি মো. মুন্না বিশ্বাসসহ র‌্যাব সদস্য ও পরিবেশ অধিদপ্তরের অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।পরিবেশ অধিদপ্তরের রংপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-রিচালক মো. মেজবাবুল আলম জানান, বিগত ২০১৩ সাল থেকে সনাতন পদ্ধতির ১২০ফুট উচ্চতার চিমনির এ সব ইটভাটা বন্ধের সরকারি নির্দেশ রয়েছে। অথচ এসব অবৈধ ইটভাটার মালিকেরা সরকারি নির্দেশ অমান্য করে ইটভাটায় ইট তৈরি ও পোড়ানো অব্যাহত রেখেছেন। পরিবেশ অধিদপ্তর সারাদেশে এ সব অবৈধ ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায়ও আটটি অবৈধ ইটভাটার মালিকের জরিমানা করা হয়েছে।