সৈয়দপুরে জাবালে নুর মাদ্রাসা নিয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

সৈয়দপুরে জাবালে নুর মাদ্রাসা নিয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

জাহিদুল হাসান জাহিদ,স্টাফ রিপোর্টার।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে নিচুকলোনী  এলাকার ছোট শিশুদের কোরআন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাবালে নুর মাদ্রাসা ও মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিবের নামে একজন ব্যক্তি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে একের পর এক ভিক্তিহীন অভিযোগ দিয়ে তাকে হয়রানী করা হচ্ছে , এমন অভিযোগ করেন মাওলানা মিজানুর রহমান।

মিজানুর রহমান বলেন, হযরত আলী নামক একজন ব্যক্তির স্বাক্ষরীত একটি ভিত্তিহীন অভিযোগ পত্র বিভিন্ন সকরকারি প্রতিষ্ঠান ও সাংবাদিকদের ভুল তথ্য দিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছে।

তিনি বলেন , জাবালে নুর মাদ্রাসা তার ব্যক্তিগত উদ্যোগ ও কয়েকজন ব্যক্তির সহযোগিতায় ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠা করেন। যেহেতু মাদ্রাসা একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তাই সঠিক শিক্ষা দান ও পরিচালনার প্রয়োজনে ২০১৭ সালে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট একটি পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়। সকলের সহযোগিতায় সুন্দর ভাবে মাদ্রাসার শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রম চলে আসছিল। হঠাৎ ২০১৮ সালে কমিটির কিছু ব্যক্তি মাদ্রাসাটা তার কাছ থেকে কমিটির নামে লিখে নিতে নানা ভাবে চাপ দিতে থাকে। তখন তিনি মাদ্রাসা লিখে দিতে অস্বীকৃতি জানালে কমিটির সবাই মাদ্রাসা ছেড়ে চলে যায়।তখন থেকে মাদ্রাসা ও তাকে জড়িয়ে একের পর এক ভিত্তিহীন মিথ্যা অভিযোগ চালিয়ে আসছে ওই ব্যক্তি ও তার কিছু লোক। এরপর থেকে কমিটি ছাড়াই শিক্ষা কার্যক্রম সঠিক ভাবে পরিচালনা করা হচ্ছে।ভাগ্যের নির্মম পরিহাস হঠাৎ সারা বিশ্বে চলে আসে মরণ ব্যধি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব। সেই সময় গোটা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকার বন্ধ ঘোষণা করেন। ওই সময় এই মাদ্রাসাও বন্ধ হয়। তার পর থেকে মাদ্রাসাটির শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম ব্যহত হয়।এরপর ও যে কয়েকজন শিক্ষার্থী মাদ্রাসায় পড়ছিল তাদের নিয়ে শুরু হয় নতুন ষড়যন্ত্র। মাদ্রাসায় যেসব শিক্ষক পড়ান তাদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দিয়ে ভাগিয়ে দেওয়া হয়। তারপর থেকে মাদ্রাসাটি স্বাভাবিক ভাবে ছাত্র শূন্য হয়ে পড়ে।তবে এখন শুধু মাদ্রাসায় সকালে ইসলামি ফাউন্ডেশনের সহজ কোরআন শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

মাদ্রাসার পরিচালক আরো বলেন,মাদ্রাসা ও তাকে নিয়ে যেভাবে মিথ্যা অভিযোগ ছড়ানো হচ্ছে তাতে তিনি মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছেন। তারপর ও তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করছেন মাদ্রাসাটি যথা নিয়মে পরিচালনা করার। খুব শীঘ্রই মাদ্রাসা বিষয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করে সত্য ঘটনা উম্মোচন করা হবে জানান।